উদীচী’র অমর একুশের কর্মসূচি

রায়েরবাজার বধ্যভূমিতে শহীদ স্মরণের মধ্য দিয়ে শুরু হলো উদীচী’র অমর একুশের কর্মসূচি

রায়েরবাজার বধ্যভূমিতে শহীদ স্মরণের মধ্য দিয়ে শুরু হলো
উদীচী’র অমর একুশের কর্মসূচি

অমর একুশের বীর ভাষা শহীদদের স্মরণে রাজধানীতে তিন দিনের কর্মসূচি শুরু করেছে বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী। ১৭, ১৮ এবং ২১ শে ফেব্রুয়ারি রাজধানীর তিনটি আলাদা স্থানে এসব কর্মসূচি পালিত হচ্ছে। কর্মসূচির প্রথম দিনে গত ১৭ ফেব্রুয়ারি বিকাল সাড়ে চারটায় রায়েরবাজার বধ্যভূমি স্মৃতিসৌধে আয়োজিত হয় উদীচী’র শহীদ স্মরণ। অনুষ্ঠানের শুরুতে তিনটি দলীয় সঙ্গীত পরিবেশন করেন উদীচী তেজগাঁও শাখার শিল্পী-কর্মীরা। তারা পরিবেশন করেন- “সালাম সালাম হাজার সালাম”, “মুক্তির মন্দির সোপান তলে” এবং “ফাল্গুন চৈত্রের ফুলগুলিরে লাল বানাইলা” গান। এরপর শুরু হয় আলোচনা সভা। উদীচী কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি অধ্যাপক ড. সফিউদ্দিন আহমদ-এর সভাপতিত্বে এতে অংশ নেন সাবেক ছাত্রনেতা আলী আকবর টাবি, উদীচী কেন্দ্রীয় সংসদের সাধারণ সম্পাদক জামসেদ আনোয়ার তপন ও উদীচী ঢাকা মহানগর সংসদের সাধারণ সম্পাদক ইকবালুল হক খান। আলোচনা সভায় বক্তারা অবিলম্বে সর্বস্তরে বাংলা ভাষা চালুর জন্য কার্যকর পদক্ষেপ নিতে সরকারের প্রতি দাবি জানান। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন উদীচী কেন্দ্রীয় সংসদের সহ-সাধারণ সম্পাদক অমিত রঞ্জন দে।

আলোচনার পর শুরু হয় সাংস্কৃতিক পরিবেশনা। এ পর্বে বৃন্দ আবৃত্তি পরিবেশন করেন উদীচী কেন্দ্রীয় সংসদের আবৃত্তি বিভাগ। এছাড়া, একক আবৃত্তি পরিবেশন করেন তামান্না তিথি। উদীচী’র বিভিন্ন শাখা সংসদের শিল্পী-কর্মীরা ছাড়াও সঙ্গীত, আবৃত্তি পরিবেশন করেন আমন্ত্রিত শিল্পীরা। সবশেষে ছিল উদীচী’র জনপ্রিয় প্রযোজনা “ইতিহাস কথা কও”-এর প্রদর্শনী। উদীচী কেন্দ্রীয় সংসদের সহ-সভাপতি মাহমুদ সেলিম রচিত বাংলা ও বাঙালির আহমান কালের ইতিহাসভিত্তিক এ গীতিনাট্যটির এবার ৪০ বছর পূর্তি হয়েছে।

আগামী ১৮ ফেব্রুয়ারি শনিবার বিকাল সাড়ে চারটায় পুরান ঢাকার বাহাদুর শাহ পার্কে অনুষ্ঠিত হবে উদীচী’র একুশে’র অনুষ্ঠানমালার দ্বিতীয় দিনের অনুষ্ঠান। আর ২১ শে ফেব্রুয়ারি শহীদ দিবসেও বিকাল সাড়ে চারটায় উদীচী’র শহীদ স্মরণ অনুষ্ঠান আয়োজিত হবে হাতিরঝিল মুক্তমঞ্চে। এছাড়া, আদালত ও দাপ্তরিক কাজে বাংলা ভাষার ব্যবহার নিশ্চিত করাসহ কয়েকটি লক্ষ্যকে সামনে রেখে পুরো ফেব্রুয়ারি মাসজুড়ে ভাষা অভিযাত্রা কর্মসূচি পালন করছে উদীচী। এই মাসে উদীচী কেন্দ্রীয় সংসদ এবং বিভিন্ন জেলা ও শাখা সংসদ সর্বস্তরে বাংলা ভাষার ব্যবহার নিশ্চিতের দাবিতে পোস্টার-প্রচারপত্র বিতরণ, রচনা প্রতিযোগিতা, প্ল্যাকার্ড-ফেস্টুন হাতে সুসজ্জিত পদযাত্রা, পথনাটক এবং গান-আবৃত্তি-নৃত্য পরিবেশনা ও পথসভার মধ্য দিয়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টির চেষ্টা চালাবে।

মাগুরায় সীমাখালি ব্রিজ ভেঙ্গে ৫ জেলার চলাচল বন্ধ

Next Story »

পিঠার স্বাদে সিলেট উইমেন চেম্বারের বসন্ত উৎসব

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *